আমি মানসিকভাবে বিধ্বস্ত, এই কষ্ট অনেক দিন বয়ে বেড়াতে হবে

কাতার বিশ্বকাপ থেকে বিদায় নিয়েছে ব্রাজিল। মার্কুইনোসের পেনাল্টি শুট আউটের শট পোস্টে লাগতেই যবনিকা পড়ে গেল ব্রাজিলের বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্নে। দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে চার চারটি গোলের পর সাম্বা নাচের যে ঝলক দেখিয়েছিল ব্রাজিল। সেই দলটাই ক্রোয়েশিয়ার কাছে হারের পর হাউ হাউ করে কান্নায় ভেঙে পড়ল।এ যেনো স্বপ্নভঙ্গ। অধরা রয়ে গেছে তাদের ‘মিশন হেক্সা’।

মূলত এই শক্তিশালী দলটাকে নিয়ে আলোচনা হচ্ছিল বিশ্বকাপ শুরুর অনেক আগে থেকেই। দলে এত এত ভালোমানের ফুটবলার।তাই এবার এই দলটিকে হট ফেবারিট মানতে আপত্তি ছিল না প্রতিপক্ষেরও। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নরা এবার হেক্সা শিরোপা ঘরে তুলবে, এমন আশায় বুক বেঁধেছিলেন সমর্থকরা। যে স্বপ্নের সারথি ছিলেন নেইমার। ব্রাজিলের এই ফুটবল সুপারস্টার এবারও পায়ের জাদুতে মুগ্ধ করেছেন বিশ্বকে। কিন্তুতার স্বপ্নটা পূরণ হয়নি।

আর এমন হারের পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রামে ভক্তদের উদ্দেশে আবেগী এক বার্তা দিয়েছেন ব্রাজিলের সর্বকালের অন্যতম সেরা ফুটবলার। নেইমার লিখেছেন, ‘আমি মানসিকভাবে বিধ্বস্ত। এটা এমন এক পরাজয় যা সবচেয়ে বেশি কষ্ট দিয়েছে। আমি ১০ মিনিটের মতো পক্ষাঘাতগ্রস্থ ছিলাম। তারপর অবিরাম কান্নায় ভেঙে পড়ি। দুর্ভাগ্যজনকভাবে দীর্ঘদিন এটা কষ্ট দেবে।

তিনি আরও জানান, আমরা শেষ পর্যন্ত লড়াই করেছি। সতীর্থদের নিয়ে আমি গর্বিত। কারণ প্রতিশ্রুতি বা আত্মনিবেদনের কমতি ছিল না। এই দলটার প্রাপ্য ছিল (শিরোপা)। আমাদের এটা প্রাপ্য ছিল, ব্রাজিলের এটা প্রাপ্য ছিল…কিন্তু এটা ঈশ্বরের ইচ্ছা ছিল না! মাঠে প্রত্যেকের ভালোবাসা অনুভব করা প্রতিটি ত্যাগের মূল্য ছিল।আমাদের নির্বাচিত করে আপনারা যে সমর্থন দিয়েছেন, তার জন্য ধন্যবাদ। দুর্ভাগ্যবশত এটি কাজ করেনি…এটা দীর্ঘসময় কষ্ট দেবে, দীর্ঘ সময়।

এসময় ঈশ্বরকে সবকিছুর জন্য ধন্যবাদ জানান এই বিশ্বসেরা ফুটবলার। তিনি লেখেন, আপনি আমাকে সবকিছু দিয়েছেন, আমার কোনোকিছু নিয়ে অভিযোগ নেই। শুধু আমার যত্ন নেওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। সমস্ত সম্মান এবং সমস্ত গৌরব সবসময় আপনার জন্য, পরিস্থিতি নির্বিশেষে।’

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*