ভাগ্যের কাছে হারলো ভালবাসা, ঐন্দ্রিলাকে হারিয়ে জীবনের কঠিন সিদ্ধান্ত বেছে নিলেন সব‍্যসাচী

রবিবার টানা ১৯ দিনের লড়াই শেষে চিরঘুমের দেশে চলে গেছেন ঐন্দ্রিলা শর্মা।

প্রাণপন বাঁচতে চেয়েছিল সে তাইতো মৃত‍্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে গেছে। দু দুইবার মারণরোগ ক‍্যান্সারকে হারিয়ে ফিরেছিলেন বীরদর্পে তাইতো এইবারেও আশা ছিল জীবনযুদ্ধে জয়ী হয়ে ফিরে আসবেন তিনি, কিন্তু হলোনা। রবিবার টানা ১৯ দিনের লড়াই শেষে চিরঘুমের দেশে চলে গেছেন ঐন্দ্রিলা শর্মা। মাত্র 24 বছরে না ফেরার দেশে চলে গেছেন এই মুহুর্তে কেবল রয়েছে তার স্মৃতি। কিন্তু তিনি তো চলে গেলেন তার লড়াই তো শেষ হলো কিন্তু লড়াই শেষ হয়নি পরিবারের।

মৃত্যুর সাথে প্রতিক্ষণে লড়াই করে গেছে ঐন্দ্রিলা শর্মা কিন্তু সেই লড়াই ছিল তার পরিবার সহ তার সর্বক্ষনের সঙ্গী প্রেমিকেরও। গত কয়েক বছরে তাকে আগলে রেখেছিলেন তার বন্ধু তথা প্রেমিক সব‍্যসাচী চৌধুরী। তিনি বিশ্বাসের সাথে বলেছিলেন নিজের হাতে নিয়ে এসেছি নিজে হাতে ফিরিয়ে নিয়ে যাবো। কিন্তু ভাগ‍্যের ফেরে তা আর হলোনা। বর্তমানে কেমন মনের অবস্থা সব‍্যসাচীর! প্রিয়তমাকে হারিয়ে কি অবস্থায় রয়েছেন তিনি। অনুরাগীদের মনে এখন একটাই প্রশ্ন কেমন আছেন সব‍্যসাচী! এবার তাদের উত্তরই দিলেন সব‍্যর কাছে বন্ধু সৌরভ দাস।

ঐন্দ্রিলা যখন দ্বিতীয়বার ক্যান্সারে আক্রান্ত হন তখন থেকে ফেসবুক পেজে অভিনেত্রী স্বাস্থ্য সংক্রান্ত খবরের আপডেট দেওয়া শুরু করেছিলেন সব‍্য। গত 2nd নভেম্বর অভিনেত্রীর ব্রেনস্ট্রোক হওয়ার পরেও তিনি আপডেট দিয়েছেন, তার দৃঢ় বিশ্বাস ছিল ঐন্দ্রিলা ফিরবেই। কিন্তু শনিবার সন্ধ্যেই হার্ট অ্যাটাকের খবর আসার পরেই সব্যসাচী ঐন্দ্রিলার স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সব পোস্ট ডিলিট করে দিয়েছিলেন। রবিবার ঐন্দ্রিলার মৃত্যুর খবর আসতেই সোশ্যাল মিডিয়া থেকে নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন অভিনেতা।

বোঝাই যাচ্ছে নিজেকে গুটিয়ে নিয়েছেন তিনি। তার বন্ধুর কথায় “সব‍্য ভেঙে পড়েছে কেমনই বা থাকবে এই পরিস্থিতিতে!” এছাড়াও তিনি জানান সব‍্যসাচী ঐন্দ্রিলাকে নিয়ে আর কখনো কিছু লিখবে না। কারণ মিষ্টির কথাতেই ও লিখতে শুরু করে। যদি কেউ আশা করেন ফেসবুকে কোন পোস্ট দেবে সব‍্য তবে তা আর হবেনা। নিজের স্মৃতিতেই বুকের কোটরে ঐন্দ্রিলাকে রেখে দেবেন তিনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*